• মঙ্গলবার, ১৪ Jul ২০২০, ০৬:৪৯ পূর্বাহ্ন

দেশের সব সরকারি কলেজকে অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার নির্দেশ

দেশের সব সরকারি কলেজকে অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার নির্দেশ

স্টাফ রিপোর্টার : করোনার কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ক্ষতি পোষাতে দেশের সব সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য অনলাইন ক্লাস নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

পাশাপাশি ২১টি সরকারি কলেজকে অনলাইনে ক্লাস নিয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের ই-মেইলে পাঠাতে বলা হয়েছে।
 
আজ বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষদের এ নির্দেশনা দিয়ে চিঠি পাঠায়।

এতে বলা হয়, কোভিড-১৯ বৈশ্বিক সংকটের কারণে প্রতিষ্ঠানগুলো সরকারের সাধারণ ছুটি ঘোষণার কারণে বন্ধ রয়েছে। এতে উচ্চ মাধ্যমিকসহ ডিগ্রি ও অনার্স কোর্সের সব শিক্ষার্থী ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। 

সে জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের পক্ষ থেকে অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার জন্য বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু অনেক প্রতিষ্ঠান আদৌ তা অনুসরণ করেনি, যা প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন বিরোধী। 

‘ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে শিক্ষার্থীদেরে অনলাইনে ক্লাস নিতে উদ্যোগী ভূমিকা নেওয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক। ফলে শিক্ষার্থীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সে জন্য প্রচলিত কারিকুলাম ও সিলেবাস অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট বিষয়ে অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার জন্য আবার আহ্বান জানানো হলো।’
 
নির্দশনায় কলেজ অধ্যক্ষদের বলা হয়, অনলাইনে নেওয়া ক্লাসগুলো প্রতিষ্ঠান প্রধানরা যাচাই-বাছাই করে তা মনোনীত করে ddgovtcollege1@gmail.com  এ আপলোড করবেন। আপনার পাঠানো ক্লাসগুলো মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করবে। 

এতে দেশের সব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা উপকৃত হবে। প্রতিষ্ঠান প্রধানরা অনলাইনে ক্লাস গ্রহণকারী সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের বিভাগীয় প্রধান ও বিভাগের শিক্ষকদের সহযোগিতা করবেন।
 
অনলাইন ক্লাসের ক্ষেত্রে কোনো প্রকার ধর্মীয় উসকানিমূলক, সাম্প্রদায়িক মনোভাবাপন্ন সংলাপ, ছবি বা কনটেন্ট ব্যবহার করা যাবে না। মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতাবিরোধী কোনো কর্মকাণ্ড, প্রচারণা, উপস্থাপনা করা যাবে না। সরকার ও দেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বিরোধী কোনো বক্তব্য সংলাপ, ছবি, কনটেন্ট ব্যবহার করা যাবে না।
 
এসব নিয়মের ব্যত্যয় ঘটলে প্রতিষ্ঠান প্রধানরা দায়ী থাকবেন উল্লেখ করে বলা হয়, অনলাইনে ক্লাস নেওয়া শিক্ষকরা সরকারের আচরণ বিধিমালা অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হবেন এবং কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
 
নির্দেশনায় ডিগ্রি ও অনার্স কোর্সের ক্লাস ছাড়াও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের বিষয়ভিত্তিক ক্লাস নিয়ে পাঠাতে বলা হয়।
 
চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ বাংলা প্রথমপত্র, পাবনা এডওয়ার্ড কলেজ বাংলা দ্বিতীয়পত্র, রাজশাহী সরকারি কলেজ ইংরেজি প্রথমপত্র, হরগঙ্গা সরকারি কলেজ ইংরেজি দ্বিতীয়পত্র, সরকারি বিএল কলেজ অর্থনীতি প্রথমপত্র, দিনাজপুর সরকারি কলেজ অর্থনীতি দ্বিতীয়পত্র, চাঁদপুর সরকারি কলেজ পৌরনীতি প্রথমপত্র, গুরুদয়াল সরকারি কলেজ পৌরনীতি দ্বিতীয়পত্রের ক্লাস পাঠাতে বলা হয়েছে।
 
বরিশাল বিএম কলেজ পদার্থ বিজ্ঞান প্রথমপত্র, আনন্দ মোহন কলেজ পদার্থ বিজ্ঞান দ্বিতীয়পত্র, কারমাইকেল কলেজ রসায়ন প্রথমপত্র, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ রসায়ন দ্বিতীয়পত্র, ঢাকা কলেজ উচ্চতর গণিত প্রথম ও দ্বিতীয়পত্র, সরকারি বিজ্ঞান কলেজ জীববিদ্যা প্রথমপত্র, ঠাঁকুরগাও সরকারি কলেজ জীববিদ্যা দ্বিতীয়পত্র, নোয়াখালী সরকারি কলেজ জীববিদ্যা প্রথমপত্র, বগুড়া আযিজুল হক কলেজ জীববিদ্যা দ্বিতীয়পত্র, সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ ও সরকারি বাঙলা কলেজ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, চট্টগ্রাম সরকারি কমার্স কলেজ ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা প্রথমপত্র, দেবেন্দ্র কলেজ ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা দ্বিতীয়পত্র এবং চট্টগ্রাম সরকারি কমার্স কলেজ হিসাব বিজ্ঞান প্রথম ও দ্বিতীয়পত্রের ক্লাস পাঠাবে। 

You can share this post!





Leave Comments