ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৮, ২০ সফর ১৪৪৩

মোশাররফ করিমেই বাজিমাত কলকাতা


প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ ০৪:১২ পূর্বাহ্ন


মোশাররফ করিমেই বাজিমাত কলকাতা

বিনোদন ডেস্ক : অপার বাংলার অভিনেতা ব্রাত্য বসু। যার খ্যাতি রয়েছে নাট্যকার, চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবেও । বর্তমানে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন। প্রায় এক দশক পর ‘ডিকশনারি’ নামে চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছেন তিনি। এতে অভিনয় করছেন বাংলাদেশের শক্তিমান অভিনেতা মোশাররফ করিম।

বৃহস্পতিবার কলকাতার মাল্টিপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত হয় এ সিনেমার প্রিমিয়ার। আজ শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) মুক্তি পেয়েছে এটি। মুক্তির পর খুব বেশি সময় পার হয়নি। এরই মধ্যে কলকাতার দর্শকদের নজর কেড়েছেন মোশাররফ করিম। ভারতের প্রথম সারির একটি গণমাধ্যম ‘ডিকশনারি’ সিনেমা নিয়ে রিভিউ প্রকাশ করেছে। এতে মোশাররফ করিমের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন সমালোচক।

মোশাররফ করিমের সমান পারদর্শিতার কথা উল্লেখ করে লিখেছেন- পৌলমী বসুর সঙ্গে সাগ্নিক চট্টোপাধ্যায়ের মা-ছেলের নিছক সারল্য ও ভালোবাসার সম্পর্ক ভালো লাগে। কিন্তু সাগ্নিকের অভিনয় আরেকটু পরিণত হলে তা আরো উপভোগ করা যেত। নজর কেড়েছেন মকর ক্রান্তি চরিত্র রূপায়নকারী মোশাররফ করিম। 

কলোনিয়াল (ক্লাবের নিত্যদিনের মদ্যপানের) হ্যাংওভার কাটিয়ে উঠতে না পারা মকরের অর্থনৈতিক উচ্চাকাঙ্ক্ষা, ছেলেকে ইঞ্জনিয়ার বানানোর মধ্যবিত্ত বাসনা ও ইংরেজি ভাষা বেগতিক হয়েও তা রপ্ত করার আপ্রাণ চেষ্টা কখনো হাসির উদ্রেক করে, কখনো করুণার- আর সবটাই মোশাররফ করিম ব্যক্ত করেছেন সমান দক্ষতায়।

বুদ্ধদেব গুহর দুটি গল্প নিয়ে গড়ে উঠেছে এ চলচ্চিত্রের কাহিনি। গল্প দুটি হলো ‘বাবা হওয়া’ ও ‘স্বামী হওয়া’। এর চিত্রনাট্য তৈরি করেছেন উজ্জ্বল চ্যাটার্জি। ‘বাবা হওয়া’ গল্পে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন মোশারফ করিম এবং পৌলমী বসু।

‘ডিকশনারি’ চলচ্চিত্রে ‘স্বামী হওয়া’ গল্পের মুখ্য তিন চরিত্রে অভিনয় করেছেন—নুসরাত জাহান, আবীর চট্টোপাধ্যায়, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়। চলচ্চিত্রটি যৌথভাবে প্রযোজনা করছে বাংলাদেশ-ভারত।


   আরও সংবাদ