ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ১৯ জ্বিলহজ্ব ১৪৪২

জর্ডানস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজন


প্রকাশ: ১৫ এপ্রিল, ২০২১ ১১:২১ পূর্বাহ্ন


জর্ডানস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজন


জর্ডানস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস বাংলা নববর্ষ ১৪২৮ উপলক্ষ্যে মঙ্গল শোভাযাত্রা ও বাংলাদেশি বিশেষ খাবারের আয়োজন করেছে। 

এই দিন প্রত্যুষে দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারী বৃন্দ এবং শিশু কিশোর ও দূতাবাসে আগত সেবা প্রার্থীদের অংশগ্রহণে মঙ্গল শোভা যাত্রার আয়োজন করা হয়।

মান্যবর রাষ্ট্রদূতের নেতৃত্বে শোভা যাত্রাটি দূতাবাস ও তৎসংলগ্ন রাস্তা প্রদক্ষিন করে পুনরায় দূতাবাসে এসে শেষ হয়। অংশগ্রহনকারীবৃন্দ ব্যানার ও সুদৃশ্য প্ল্যাকার্ড হাতে বাংলা নতুন বছরকে স্বাগত জানায়। মঙ্গল শোভা যাত্রা শেষে মান্যবর রাষ্ট্রদূত তাঁর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, বাংলা নববর্ষের উদযাপন আমাদের চিরায়ত বাঙ্গালী ঐতিহ্যের একটি অন্যতম অনুসঙ্গ। কয়েক দশকের পরিক্রমায় মঙ্গল শোভাযাত্রা আমাদের নিজস্ব সংস্কৃতির ধারক ও বাহক হয়ে উঠেছে। জাতি ধর্ম নির্বিশেষে আমাদের এই সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে ধারন করা আমাদের সকলের দায়িত্ব। 

বাঙ্গালী চেতনার বৈশ্বিক প্রচারে আমাদের নিজেদের ঐতিহ্যকে সবার মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার লক্ষ্যে আমাদের সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। মুজিব বর্ষ ও আমাদের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর বছরের এই দিনে বাংলা নববর্ষের উদযাপন আমাদের জন্য বিশেষ গুরুত্ব বহন করে। 

কোভিড জনিত বিশেষ পরিস্থিতির মধ্যে দূতাবাস কর্তৃক আয়োজিত মঙ্গল শোভাযাত্রায় অংশ গ্রহনের জন্য রাষ্ট্রদূত সবাইকে ধন্যবাদ জানান। তিনি আশা প্রকাশ করেন নতুন বছরে সকল প্রতিকূলতা অতিক্রম করে সবাই সুস্থ্য ও স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারবে।  

মঙ্গল শোভা যাত্রা ও সংক্ষিপ্ত আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে সবাইকে বাংলাদেশি পিঠা ও ইফতার সামগ্রীসহ দৃষ্টি নন্দন বক্স দিয়ে আপ্যায়িত করা হয়।  

উল্লেখ্য, বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে দূতাবাস বৃহৎ পরিসরে মঙ্গল শোভাযাত্রা, পিঠা উৎসব ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজনের পরিকল্পনা করে থাকলেও কোভিড জনিত বিধিনিষেধের কারনে সীমিত পরিসরে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।


   আরও সংবাদ